রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
Space Advertisement
Space For advertisement


হুইল চেয়ারে বসে থাকা বৃদ্ধকে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা : আটক-৫


আমাদের কুমিল্লা .কম :
14.06.2023

মোস্তাফিজুর রহমান ।। কুমিল্লার দাউদকান্দিতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে হুইল চেয়ারে বসা এক বৃদ্ধকে কোদাল দিয়ে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।
১৩জুন মঙ্গলবার সকালে দাউদকান্দি উপজেলার ইলিয়টগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নের টামটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এরই মধ্যে এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।প্রাণ হারানো ৭০ বছর বয়সী আমির হোসেন টামটা গ্রামের বাসিন্দা।এ ঘটনায় মূল অভিযুক্ত পল্লি চিকিৎসক ৫৫ বছর বয়সী নাছিরসহ পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ।
আটকেরা হলেন- পল্লি চিকিৎসক এ বিএম ওসমান গনি (৫৫), তার ভাই শামীম ওসমান (৪৮) ও শাহাদৎ (৩৫) এবং ওসমান গনির ছেলে সিয়াম (২৭) ও সিহাব (২৯)। আমির ও গনি দুজন সম্পর্কে মামাতো ফুপাতো ভাই।
এদিকে ঘটনার পরই ১মিনিট ৫৮ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে।
ভিডিওতে দেখা যায়, বাড়ির সামনে হুইল চেয়ারে বসে ছিলেন আমির হোসেন। এ সময় হঠাৎ করে হাতে কোদাল নিয়ে ঘাড়ে জোরে আঘাত করেন নাছির। এ সময় আমির হুইল চেয়ার থেকে সড়কে পড়ে যান। এরপর আরও জোরে জোরে কোদাল দিয়ে পেটাতে থাকেন নাছির। পরে সেখান থেকে নিজের বাড়িতে চলে যান নাছির। স্থানীয়রা এসে গুরুতর আহত অবস্থায় আমির হোসেনকে উদ্ধারের কিছুক্ষণ পরই তার মৃত্যু হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা বলছেন, এ ঘটনায় নিহত ব্যক্তির নাম আমির হোসেন (৬৫)। তিনি টামটা এলাকার মৃত আইয়ুব আলীর ছেলে। আর কোদাল দিয়ে আঘাত করা ব্যক্তির নাম এ বিএম ওসমান গনি ওরফে নাসিম ডাক্তার (৫৫)। তিনি টামটার মৃত শহিদুল্লাহ মাস্টারের ছেলে। দুজনেই সম্পর্কে আপন মামাতো-ফুপাতো ভাই।
স্থানীয়রা জানান, তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। মঙ্গলবার সকালে আমির বাড়ির সামনের পাকা রাস্তার উপর গেলে তাকে একা পেয়ে গনির লোকজন হামলা করে। এতে আমির আহত হন। সংবাদ পেয়ে আমিরের লোকজন তাকে উদ্ধার করতে আসলে উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারি হয়। তখন আমির ঝগড়া থেকে সামান্য দূরে সরে যান। একপর্যায়ে গনি তার ওপর হামলা করেন। স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আমিরকে মৃত বলে জানান।
দাউদকান্দি থানার ওসি মোহাম্মদ আলমগীর ভুইয়া জানান, আমির হোসেনের সঙ্গে নাছিরের জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। সর্ম্পকে তারা মামাতো-ফুফাতো ভাই। এ হত্যার ঘটনায় নাছিরসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।