রবিবার ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩
Space Advertisement
Space For advertisement
  • প্রচ্ছদ » sub lead 2 » হোমনায় জামাইয়ের বিরুদ্ধে শ্বশুরকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ


হোমনায় জামাইয়ের বিরুদ্ধে শ্বশুরকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ


আমাদের কুমিল্লা .কম :
10.11.2022

হোমনা প্রতিনিধি ।। কুমিল্লার হোমনায় মেয়ের জামাইয়ের বিরুদ্ধে শ্বশুরকে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ করেছেন শাশুরী। মঙ্গলবার মেয়ের জামাই দেলোয়ার হোসেন সাইদির বিরুদ্ধে থানায় হত্যাচেষ্টা, চুরি ও ভয়ভীতি প্রদর্শনের এ অভিযোগ দায়ের করেন শাশুরী অজিফা বেগম।
অভিযোগে জানা যায়, দুই বছর আগে তাদের মেয়ে নুজহাতুল মরিয়মকে জোরপূর্বক বিয়ে করেন উপজেলা সদরের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে দেলোয়ার হোসেন সাইদি। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই মেয়েকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতে থাকেন। চলতি বছরের পাঁচ মাস পূর্বে জামাই দেলোয়ার হোসেন সাইদি অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় মারধর করে মৌখিকভাবে তালাক দিয়ে মেয়েকে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেন। পরবর্তীতে গত সেপ্টেম্বর মাসের ৫ তারিখ রাত আড়াইটার দিকে হোমনা পল্লী বিদ্যুত অফিস রোডের শ্বশুর আলাউদ্দিনের চালের দোকানে অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটায়। এ বিষয়ে পরের দিন হোমনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়।
অজিফা বেগম আরও অভিযোগ করেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় স্বামী আলাউদ্দিন পল্লী বিদ্যুত রোডের তার চালের ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে ব্যাগভর্তি ১১ লাখ ২০ হাজার টাকাসহ ছেলেকে নিয়ে মোটর সাইকেলযোগে নিজ বাড়ি একই উপজেলার মিরশ্বীকারী গ্রামে যাচ্ছিলেন। পৌরসভাধীন কান্দা রোডে পৌঁছামাত্র জামাই দেলোয়ার হোসেন সাইদিসহ অজ্ঞাত আরও ২-৩ জন পূর্বপরিকল্পিতভাবে স্বামী আলাউদ্দিনকে হত্যার উদ্দেশ্যে পথরোধ করে দাঁড়ায়। এর পর দেলোয়ার হোসেন সাইদি ধারালো ছোরা দিয়ে আলাউদ্দিনের বুকের ডান পাশে আঘাত করে। এতে তিনি রক্তাক্ত জখম হন। ছেলে মেহেদী হাসান আহতাবস্থায় তার বাবাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠায়।
ছেলে মেহেদী হাসান বলেন, ‘ আগে থেকে উৎ পেতে থাকা দেলোয়ার হোসেন সাইদিসহ অজ্ঞাত আরও ২-৩ জন তাদের পথরোধ করে তার বাবাকে অতর্কিতভাবে ছোরা দিয়ে বুকের ডান পাশে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। এতে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। আমি কোনোরকমে বাবাকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যাই। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাবাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’
অভিযুক্ত দেলোয়ার হোসেন সাইদিকে মোবাইল ফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও পাওয়ায় না যাওয়ায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
এ ব্যাপারে হোমনা থানার ভারপ্রাপÍ কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, ব্যবসায়ী আলাউদ্দিনের বুকে ছোরার আঘাতের চিহ্ন থাকার ছবি রয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামি ধরার চেষ্টা অব্যাহত আছে।