মঙ্গল্বার ৯ অগাস্ট ২০২২
Space Advertisement
Space For advertisement


বোঝাপড়ার মাধ্যমে হোমনায় পশুর হাটের ইজারা!


আমাদের কুমিল্লা .কম :
06.07.2022

মোর্শেদুল ইসলাম শাজু, হোমনা ।। আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে কুমিল্লার হোমনায় অস্থায়ী পশুর হাটের ইজারা চূড়ান্ত করেছে প্রশাসন। ইজারা গ্রহীতাকে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি অন্যান্য বিধিবিধান মেনে পশুর হাট পরিচালনার জন্য কঠোরভাবে নির্দেশনা জারী করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুমন দে। এবার উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে মোট ১৬টি বাজারের জন্য খোলা ডাকের মাধ্যমে ইজারাদার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তবে দু’একটি বাদে বাকীগুলোতে তেমন প্রতিযোগিতা ছিল না। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই বলেছেন, বোঝাপড়ার মাধ্যমেই দরপত্র জমা দেওয়া হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সবগুলো বাজারের দরপত্র ক্রয় ও দাখিলে ছিল সরকার দলীয় নেতাকর্মীদের আধিপত্য। উপজেলার ১৬টি অস্থায়ী পশুর হাটের সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ৭ লাখ টাকায় মাথাভাঙা মুন্সিরহাটের ইজারা পেয়েছেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহ্বায়ক মহাসীন সরকার, ২ লাখ ২১ হাজার টাকা ইজারা মূল্যে দড়িচর বাজার পেয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম প্রধান, ৪ হাজার ৮শ ৮০ টাকায় মাধবপুর ওয়ালী বাজার পেয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মাহবুবুর রহমান খন্দকার, ১ লাখ ২৪ হাজার টাকায় দুলালপুর বাজারের ইজারা পেয়েছেন ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন মিয়া, ৫ হাজার ২শ টাকায় দৌলতপুর বাজার পেয়েছেন আওয়ামী লীগ সদস্য মো. মোশারফ হোসেন, ১৪ হাজার ৮৭৫ টাকায় কালমিনা বাজার পেয়েছেন যুবলীগ নেতা আক্তার হোসেন, ২৬ হাজার টাকায় রামকৃষ্ণপুর বাজার পেয়েছেন জালাল মিয়া (দলীয় পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি), ৫৯ হাজার টাকায় আওয়ামী লীগ সদস্য চান্দেরচর বটতলী বাজার পেয়েছেন আওয়ামী লীগ সদস্য মো. হাবিবুর রহমান, ২৫ হাজার ৬শ টাকায় বাগসিতারামপুর বাজার পেয়েছেন যুবলীগ কর্মী ইসমাইল হোসেন, ৫ হাজার ৮শ টাকায় রামপুর তালতলা বাজার পেয়েছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হারুন মমিন, ১২ হাজার টাকায় আছাদপুর বাজার পেয়েছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সদস্য আ. রহমান, ২৫ হাজার ৫শ টকায় ঘনিয়ারচর বাজার পেয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য মো. সিদ্দিকুর রহমান, ৬ হাজার ৫শ টকায় কাশিপুর বাজার পেয়েছেন ৩নং কাশিপুর ওয়ার্ডে বর্তমান মেম্বার ও আওয়ামী লীগ কর্মী মো. জালাল উদ্দিন, ৭ হাজার ৫শ টাকায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মো. ফজলুল হক মোল্লা ও ২৫ হাজার ৫শ টাকায় মনিপুর বাজার পেয়েছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সদস্য মো. মনির হেগাসেনে।
এদিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যবিধি ও সরকারি অন্যান্য বিধিনিষেধ মেনে অস্থায়ী পশুর হাট পরিচালনার জন্য যে নির্দেশনা জারী করা হয়েছে তা পুরোপুরি অনুসরণ করতে সংশয় প্রকাশ করেছেন অনেকেই।
অস্থায়ী পশুর হাট পরিচালনার ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুমন দে বলেন, দরপপত্র আহ্বান করে খোলা ডাকের মাধ্যমে স্বচ্ছতার সঙ্গে উপজেলার ১৬টি অস্থায়ী পশুর হাটের ইজারা প্রদান করা হয়েছে। ইজারা গ্রহীতাদের অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পশুর হাট পরিচালনা করতে হবে। ক্রেতা বিক্রেতাদের প্রবেশ এবং বহির্গমণের জন্য পৃথক পথের ব্যবস্থা রাখতে হবে। কোনোভাবেই সড়ক বা মহাসড়কের পাশে বা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠ, খেলার মাঠে অস্থায়ী পশুর হাট বসানো যাবে না। এর ব্যত্যয় হলে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।