সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২
Space Advertisement
Space For advertisement


নগরীতে আরেকটি জমজমাট রঙিন নির্বাচন


আমাদের কুমিল্লা .কম :
21.06.2022

#২৫ জুন ভোট, ৩০ পদে ৭১ প্রার্থী
# থাকবেন একাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট
আবু সুফিয়ান রাসেল।।
কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ১০দিন পর আরেকটি জমজমাট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে নগরীতে। কুমিল্লা জেলা বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন ৭১জন প্রার্থী। ৩০ পদের জন্য চলছে জমজমাট প্রচারণা। পাঁচ হাজার ১১২ জন ভোটারের মন জয়ে প্রার্থীরা নানা কৌশলে প্রচারণা করছেন। রঙিন পোস্টারে ছেয়ে গেছে টার্মিনাল। বাসের গায়েও রয়েছে রঙিন পোস্টার ও স্টিকার। এনিয়ে উৎসরে আমেজ দেখা গেছে শ্রমিকদের মধ্যে। এ বছর রাজনৈতিক প্রভাব ছাড়া হাড্ডাহাড্ডি লাড়াইয়ের আশা করেন ভোটাররা। ভোটের দিন মাঠে থাকবেন একাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। ভোট গ্রহণ হবে জাঙ্গালিয়া বাস টার্মিনালে শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ে।
সূত্রমতে, সর্বশেষ ২০১৩ সালে কুমিল্লা জেলা বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচন হয়েছিলো। এ নির্বাচনের জন্য শ্রম আদালত পর্যন্ত মামলা করেছেন ইউনিয়নের সদস্যরা। আগামী তিন বছরের জন্য ২৫ জুন ভোট দিবেন শ্রমিকরা। নিবন্ধন নং চট্টগ্রাম-২০২৬ সংগঠনের নির্বাচনী আচরণের আচরণ বিধিমালায় ১৪ শর্ত রয়েছে। এসব শর্তে রয়েছে বেলা ২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত প্রচারণা। প্রচারে একাধিক মাইক ব্যবহার না করা। ট্রাক ও মোটর সাইকেলে মিছিল করা যাবে না। টার্মিনাল এলাকায় ক্যাম্প স্থাপন করা যাবে না। এছাড়াও হাসপাতাল, বিদ্যালয় ও সড়কে সভা করা যাবে না।
নির্বাচন কমিশনের তথ্যমতে, সভাপতি পদে একটি পদের জন্য লড়াই করছেন দোয়াত কলম প্রতীকে মোহাম্মদ আলী, চেয়ার প্রতীকে মো. আজাদ মিয়া, ছাতা প্রতীকে জামাল উদ্দিন। সাধারণ সম্পাদক পদে লড়াই করছেন গোলাপ ফুল প্রতীকে কাজী মোতাহার হোসেন, আনারস প্রতীকে মো. কামাল হোসেন খন্দকার, কার্যকরী সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন মো. মাসুদুর রহমান লিটন, আজাদ হোসেন। সহ-সভাপতি পদে তিনটি পদের জন্য লড়াই করছেন মো. আবাদ, মো. রফিকুল ইসলাম, মো. একরাম হোসেন, মো. ইউনুছ মিয়া, মো. ফিরোজ মিয়া, নাজমুল ইসলাম শামীম, মো. আবদুল মজিদ, মো. মনির হোসেন। যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে লড়াই করছেন আবদুল বারেক ও মো. আমিনুল ইসলাম, সহ সাধারণ সম্পাদক পদে তিনটি পদের জন্য লড়াই করছেন মো. সহিদ মিয়া, মো. বাহার উদ্দিন, আবদুল জলিল, মো. হানিফ মিয়া, মো. আনোয়ার হোসেন, মো. আবদুল কাদের। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে লড়াই করছেন আল-আমিন, মো. মিন্টু মিয়া, মো. বাবুল মিয়া। সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছেন মো. শরীফ হোসেন সরকার। দপ্তর সম্পাদক পদে লড়াই করছেন মো. কামাল, শহিদুল ইসলাম, ফারুক আহাম্মদ, আসলাম মিয়া। সহ-দপ্তর সম্পাদক পদে লড়াই হবে মিজানুর রহমান ও মো. ফারুক আহাম্মদ সুমনের মাঝে। প্রচার সম্পাদক পদে রয়েছেন খোরশেদ আলম, আবদুল হক, মো. বিপ্লব। সহ-প্রচার সম্পাদক পদে লড়াই হবে মো. নাছির উদ্দিন ও বাচ্চু মিয়ার মাধ্যে। আইন বিষয়ক সম্পাদক পদে লড়াই হবে মো. কামাল হোসেন ও ফেরদৌস আহাম্মদের মাঝে। কোষাধ্যক্ষ পদে লড়াই করছেন কাজী মুনছুর খাঁন, মো. মজিবুর রহমান, মো. জসিম উদ্দিন। সহ-কোষাধ্যক্ষ মো. নাজমুল আশরেক, মো. রাশেদুল ইসলাম। লাইন সম্পাদক পদে দুটি পদের জন্য লড়াই করছেন তিনজন। তারা হলেন আবুল কালাম, মো. জাকির হোসেন, মো. মফিজ মিয়া। সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পদে লড়াই করছেন আক্তারুজ্জামান ও মো. জুয়েল। এছাড়াও আটটি সদস্য পদের জন্য লড়াই করছেন ২২ জন।
ইউনিয়নের সদস্য ট্রাক চালক ও ট্রাক মালিক মো. ফজল হক বলেন, ২০ বছর এ ইউনিয়নের সদস্য। এ নিয়ে তিনটি নির্বাচন হচ্ছে। আমরা চাই যারা শ্রমিকের কল্যাণে কাজ করবে তারা নির্বাচিত হোক। রোডে বিপদে পড়লে যেনো তারা পাশে থাকে। আগের নির্বাচনে দেখেছি রাজনৈতিক একটা শক্তি ছিলো। এবছর তা দেখি না। ভালো একটা নির্বাচন হোক। এটাই চাই।
বলাকা বাসের হেলপার জসিম উদ্দিন বলেন, করোনার সময় যাদের পাশে পেয়েছি, তাদের ভোট দিবো। এটা কোন রাজনৈতিক নির্বাচন নয়। ভোট দেওয়া আমাদের অধিকার। সারাদেশের শ্রমিকরা এ ইউনিয়নের সদস্য। ২৫ তারিখ আমাদের ঈদের দিন।
কুমিল্লা জেলা বাস ও মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়ন নির্বাচনের কমিশনার আমানত হোসেন বলেন, নির্বাচনের সকল প্রস্তুতি শেষ। ২৩ জুন রাত ১২টায় প্রচারণা শেষ হবে। ২৫ জুন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলবে। এখানে ৩০টি পদের মধ্যে ২৯টি পদে লড়াই চলছে। মোট ৭১ জন প্রার্থী রয়েছেন। পাঁচ হাজার ১১২ জন ভোটার রয়েছেন। ভোটের দিন মাঠে থাকবেন একাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।