সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২
Space Advertisement
Space For advertisement


কুসিক নির্বাচন: ভোটের মাঠে কার কত অভিজ্ঞতা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
19.05.2022

তৈয়বুর রহমান সোহেল ।। কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনে এবার ছয়জন মেয়র প্রার্থী তাদের মনোনয়ন দাখিল করেছেন। তাদের মধ্যে বিএনপি নেতা সদ্য সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু নির্বাচনের অভিজ্ঞতায় সবার চেয়ে এগিয়ে। জীবনে প্রথমবারের মতো স্থানীয় সরকার নির্বাচন করছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, স্বতন্ত্র প্রার্থী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দল সভাপতি নিজামউদ্দিন কায়সার ও স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল আহসান বাবুল। আগে নির্বাচন করেছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী কুমিল্লা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাসুদ পারভেজ খান ইমরান ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের রাশেদুল ইসলাম।
আরফানুল হক রিফাত জানান, খেলার মাঠ থেকে রাজনীতিতে এসেছি। এবারের আওয়ামী লীগ অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ। জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী।
মনিরুল হক সাক্কু বলেন, তিনি ২০১৩ সালে ও ২০১৮ সালের সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি কুমিল্লা পৌরসভার মেয়রের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। কুমিল্লার জনগণ তাকে ভালোবাসে। তারা বারবার তাকে নির্বাচিত করেছে। এবারও তারা তাকে বেছে নিবে।
২০১৪ সালে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে কুমিল্লা-৬ আসনে সংসদ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন প্রয়াত বর্ষীয়াণ আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ আফজল খানের ছেলে কুমিল্লা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাসুদ পারভেজ খান ইমরান। ওই নির্বাচনে পরাজিত হন তিনি। স্বতন্ত্রের ব্যানারে এটি তার দ্বিতীয় নির্বাচন।
মাসুদ পারভেজ খান ইমরান বলেন, আমি কোনো দলের বিরুদ্ধে নির্বাচন করছি না। আমি ব্যক্তির বিরুদ্ধে নির্বাচন করছি। মানুষ সবাই জানে সাক্কু-রিফাত একই। তারা একই নেতার লোক। পরিবর্তনের আশা নিয়েই এবারের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি।
নিজাম উদ্দিন কায়সার জানান, নির্বাচনে এবারে প্রথম তিনি। কুমিল্লা বিএনপির ঊর্বর ঘাঁটি। মানুষ পরিবর্তনে বিশ্বাসী। কুমিল্লার বিএনপিও পরিবর্তন চায়। নির্বাচনের মাঠে নতুন হলেও কুমিল্লা নগরীর মানুষের পূর্ণ সমর্থন আছে আমার ওপর।
ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের রাশেদুল ইসলাম জানান, তিনি একাদশ সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-৫ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। যদিও তিনি জয়ী হতে পারেননি। এবার তিনি মানুষের মূল্যায়ন পাবেন বলে আশা করেন।
স্বতন্ত্র প্রার্থী কামরুল আহসান বাবুল বলেন, তিনি এবারই প্রথম নির্বাচন করছেন। তার পরিকল্পনা নিয়ে মানুষের কাছে যাবেন। মানুষ তাকে ভোট দিবেন বলে তার বিশ^াস।