বুধবার ১৭ অগাস্ট ২০২২
Space Advertisement
Space For advertisement


দেবিদ্বারে কবরস্থান কেটে ভরাট করা হচ্ছে খাল, নির্মাণ হচ্ছে রাস্তা


আমাদের কুমিল্লা .কম :
30.04.2022

সৈয়দ খলিলুর রহমান বাবুল, দেবিদ্বার ।।
কুমিল্লার দেবিদ্বারে কবরস্থানের মাটি কেটে নিয়ে একটি চলমান খাল ভরাট করে ফেলছে স্থানীয় প্রভাবশালীরা। খালের মাঝ বরাবর বাধ দিয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে রাস্তা। উপজেলার সুবিল ইউনিয়নের বুড়িরপাড় পুরাতন বাজার সংলগ্ন সুবিল-বুড়িরপাড় খালটি ভরাট করার কারণে আসন্ন বর্ষায় সৃষ্টি হতে পারে জলাবদ্ধতা।
স্থানীয়রা জানান, ওই ইউনিয়নের অধিকাংশ খালই কেউ না কেউ দখল করে গড়েছেন বসত বাড়ি। কেউবা একই সঙ্গে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলে দখল করে আসছেন। সংশ্লিষ্ট সংস্থার এসএ, আরএস ও বিএস জরিপে যেখানে খাল দেখানো হয়েছে বাস্তবে সেখানে বহু আগেই ওই খালগুলো ভরাট করে দখল করে নেয়া হয়েছে।
সরেজমিনে যেয়ে দেখা যায়, ভেকু দিয়ে সংলগ্ন কবরস্থানের মাটি কেটে নিয়ে খাল ভরাট করে সড়ক নির্মাণ করে যাচ্ছে একটি প্রভাবশালী মহল। সদ্য একটি কবর বাকী রেখে, গোটা কবরস্থানটিকে বানিয়ে ফেলা হয়েছে বিশাল এক পুকুর। এটা কেন করা হচ্ছে জানতে চাইলে ড্রেজার মেসিন ব্যাবসায়ি মোঃ শাহআলম বলেন, আমরা আমাদের পারিবারিক গোরস্থাানের সংস্কার করছি। ভেকুর সাহায্যে গোরস্থানের মাটি কেটে খালের অংশ ভরাট করছি। পরবর্তীতে ড্রেজার মেসিন দিয়ে মাটি অন্যস্থান থেকে উত্তোলন করে গোরস্থানটি আবার ভরাট করব। লাশ আনা নেয়ার জন্য খালের উপর সড়ক নির্মাণ করেছি, তবে সড়কের নিচে ৬ ইঞ্চি ৩টি পাইপ দিয়েছি পানি নিষ্কাশনের জন্য।

স্থানীয় সুরুজ মিয়া জানান, উপজেলার সুবিল ইউনিয়নের সুবিল গ্রামেই্র প্রায় ২০-২২ একর খাস জমি ছিল। এ এলাকার বড় বড় খাল ভরাট করে দখল, মার্কেট নির্মাণ, বাড়ি নির্মাণ ও সড়ক নির্মাণ এখন সাধারন ঘটনায় পরিনত হয়েছে।
প্রবীণ কৃষক আব্বাস আলী বলেন, সুবিল, ওয়াহেদপুর, আব্দুল্লাহপুর ও বুড়িরপাড় গ্রামের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া অধিকাংশ খাল প্রভাবশালীদের দখলে থাকার ফলে খালের পানির গতিধারা বিঘিœত হওয়ায় এ এলাকার মৎসজীবীরা যেমন বেকার হয়ে পড়েছেন তেমনি এলাকার সাধারন মানুষ নানা প্রজাতির দেশীয় মাছ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। শুকনো মৌসুমে পানি সংকটের ফসলী জমি এবং বীজতলাগুলোতে সেচ দেয়া যায় না আবার বর্ষা কালে লেগে থাকে জলাবদ্ধতা। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভ‚মি) মোঃ গিয়াস উদ্দিন জানান, খাল ভরাট করে রাস্তা ও গোরস্তান নির্মাণের বিষয়টি শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত স্বাপেক্ষে সত্যতা যাচাইয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেব।